পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড় আর ভগবান রামের জন্মস্থান অযোধ্যার সম্পর্ক।

হিন্দু মহাকাব্য রামায়ণ অনুযায়ী ভগবান রামের জন্ম অযোধ্যায়। এই অযোধ্যা হল উত্তর প্রদেশের ফ্যায়জাবাদ (Faizabad) শহরের নিকট। অযোধ্যা শহরের কাছে হনুমান গড়হি নামে এক জায়গা আছে। কথিত আছে রাম ও সীতা বনবাসে যাবার সময় হনুমান এই হনুমান গড়হি তে অপেক্ষা করেছিলেন।
সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষনা হবার পর কিছু খবর পাওয়া যাচ্ছে যেমন 330 কোটি টাকা খরচ করে 100 মিটার উঁচু রামের মূর্তি স্থাপন করা হবে অযোধ্যা শহরে। উত্তর প্রদেশ সরকার ও কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে প্রদর্শনশালা তৈরী করা হবে অযোধ্যা রেল স্টেশনে যা রাম মন্দিরের আদলে করা হবে। সারা দেশ থেকে অযোধ্যাগামী ট্রেন চালু করারও প্রস্তাব দিয়েছে কেন্দ্র। কেন্দ্র সরকার  নিউ অযোধ্যা নামে টাউনশিপ তৈরী করার পরিকল্পনা নিয়েছে 500 একর জমির উপর।

এদিকে অযোধ্যা পাহাড় হল পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া জেলাতে। অযোধ্যা পাহাড় হল পূর্বঘাট পর্বত রেন্জের একটা বিচ্ছিন্ন অংশ। অযোধ্যা পাহাড়ের সর্বোচ্চ শৃঙ্গের নাম গোরগাবরু। পুরুলিয়ার এই পর্বতের নাম অযোধ্যা পাহাড় হওয়ার কারন কি? কিংবদন্তী অনুযায়ী রাম ও সীতা বনবাসে আসেন এই পাহাড়ে, জন্মভূমি অযোধ্যার নাম হিসাবে এই পাহাড়ের নাম অযোধ্যা রাখা হয়। এই জায়গায় এসে সীতা তৃষ্ণার্ত হলে ভগবান রাম তীরের ফলার সাহায্যে মাটি খুড়ে জল বের করে সীতার তৃষ্ণা মেটান। ঐজন্য ওই জায়গাটি সীতাকুন্ড নামে পরিচিত। এই জায়গায় প্রতিবছর বৈশাখ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে স্থানীয় অধিবাসীরা বন্যপশু শিকার উৎসবে যোগ দেন।

Share this:

Leave a comment